ভাল থাকি ভাল খাই – ফরহাদ মজহার

ভাল থাকি ভাল খাই
নয়াকৃষির গুন গাই

পুকুর থেকে সদ্য তোলা নলা মাছ লেবু,লবন, আদার টুকরা ও আদার রস এবং তুলসি পাতা দিয়ে মেখে রাখা হয়েছিল ঘন্টা খানেক। তারপর হাল্কা হলুদ মেখে ঘানির সরিষার তেল দিয়ে ভাজা, সঙ্গে মূলা শাক ও কচি যশোরি বেগুন। ঢেঁকিতে ছাঁটা লাল টেপাবোরোর বৈঠা ভাত, মাষকলাইয়ের ডাল এবং সঙ্গে তেলাকুচার পাতা ও ডালের বড়ি; সঙ্গে জাম্বুরার সালাদ। আরশিনগর বিদ্যাঘর দিন দিন আকর্ষণীয় হয়ে উঠছে। বিদ্যাঘরের পক্ষে আমন্ত্রণ জানিয়ে রাখছি। বন্ধুদের নিয়ে বেড়াতে আসুন।

ভাব বা দর্শন ছেলেবেলা থেকেই আমাকে গভীর ভাবে টেনেছে। জীবন যাপন ও রাজনীতি যার ব্যবহারিক দিক। দেশে বিদেশে পড়েছি ওষুধ শাস্ত্র আর অর্থনীতি। সেই সুবাদে ভারি ভারি কিতাব। কিন্তু স্বাস্থ্য নিয়ে যতো পড়েছি ততোই বুঝেছি সুস্বাস্থ্য বহাল রাখার বিবেচনাতে ডাক্তারি, ওষুধ কিম্বা চিকিৎসারও আগে ভাবতে হবে খাদ্য, পুষ্টি এবং রোগ প্রতিরোধের বিধান নিয়ে। যে জনগোষ্ঠি খাদ্য নিয়ে ভাবে না, ভাবতে জানে না, যা তা খায়, কিম্বা খাদ্যের সঙ্গে দেহের সম্পর্ক সম্বন্ধে অসচেতন সেই জনগোষ্ঠি তাদের শরীর ডাক্তার, হাসপাতাল ও ক্লিনিকের কাছে বন্ধক দিয়ে দেয়। খাদ্য না খেয়ে তারা ওষুধকে খাদ্য বানিয়ে ফেলে।

প্রাণ, প্রকৃতি ও পরিবেশ সুরক্ষা সংক্রান্ত বিজ্ঞান (ecology) ছাড়াও খাদ্য ব্যবস্থার পরমার্থিক তাৎপর্য রয়েছে। নয়াকৃষি আন্দোলন গড়ে ওঠার ক্ষেত্রে সেই তাৎপর্য ভূমিকা রেখেছে। এই উপলব্ধি আমাদের গাঢ় করার দরকার আছে যে চাষাবাদ বা খাদ্য উৎপাদন জগতের সঙ্গে আমাদের আন্তরিক সম্বন্ধ নির্ণয়ের নির্ধারক দিকও বটে। এই সম্বন্ধকে আমরা খাদ্যভুক জীবের সাময়িক পরিতৃপ্তিতে পর্যবসিত করতে পারি না। বরং এই সম্বন্ধ প্রাণ ও প্রকৃতির সুরক্ষা বা সৃষ্টির হেফাজত করার কর্তব্যের সঙ্গে যুক্ত। কি খাচ্ছি কিম্বা কিভাবে খাচ্ছি এই জিজ্ঞাসা সে কারণে গুরুত্বপূর্ণ। সারবিষ কিম্বা প্রাণ ও প্রকৃতির ক্ষতি করে এমন কৃৎকৌশল ব্যবহারের বিরুদ্ধে গ্রামের কৃষকদের সংগঠিত করবার ক্ষেত্রে এই চিন্তাই গভীর ভাবে কাজ করে।

লবন ছাড়া এই ছবির সবকিছুই সারবিষ ও রাসায়নিক পদার্থ ছাড়া নয়াকৃষি পদ্ধতিতে উৎপন্ন।



ফরহাদ মজহার | উৎস | তারিখ ও সময়: 2018-11-07 12:51:09