লিঙ্গ পরিচয়ে পরিচিত হওয়ার চেষ্টা না করে বরং জ্ঞান ও প্রজ্ঞার পরিচয় পরিচিত হবার চেষ্টা করুন – একেএম ওয়াহিদুজ্জামান

লিঙ্গ পরিচয়ে পরিচিত হওয়ার চেষ্টা না করে বরং জ্ঞান ও প্রজ্ঞার পরিচয় পরিচিত হবার চেষ্টা করেন। অর্ধেক সমস্যার সমাধান তো এখানেই হয়ে যাবে। বাকি সমস্যার সমাধান আপনাদের একার হাতে নয়। এর জন্য সমাজে সাম্য প্রতিষ্ঠা করতে হবে। যেদিন আপনার বাসার কিশোরি কাজের মেয়েটির সাথে নিজের সন্তানদের মত আচরণ করতে পারবেন, তাকে একই ধরণের পোষাক, একই টেবিলে বসিয়ে একই খাবার আর একই ধরণের বিছানায় ঘুমানোর ব্যবস্থা করতে পারবেন, সেদিনের আগে আপনার পরিবারেই সাম্যের অধিকার প্রতিষ্ঠিত হবে না। পরিবারে সাম্য না আসলে সমাজে সাম্য আসবে কোথা থেকে? আর সমাজেই যদি ধনী-গরিব, সাদা-কালো, মুক্তিযোদ্ধা-রাজাকার বৈষম্য বজায় রাখেন, তাহলে নারী-পুরুষ বৈষম্য থাকবে না কেন?

ইউরোপ থেকে যে ফেমিনিজমকে আপনারা কপি-পেস্ট করে নারীবাদ আমদানী করেছেন, সেই ইউরোপ কিন্তু ঐটা অন্য কোথাও থেকে কপি-পেস্ট করতে পারেনি। তাদেরকে ফেমিনিজম বুঝতে এবং অর্জন করতে কয়েক শতাব্দির দীর্ঘ সংগ্রামের মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে; রেনেসাঁর মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। বিশেষ করে যে সিমন দ্য বোভোয়ার এর হাত ধরে নারীবাদ পূর্ণতা লাভ করেছে, তার দেশ ফ্রান্সকে ফরাসি বিপ্লবের মত কষ্টকর সংগ্রাম কেও পাড়ি দিতে হয়েছে। ওখানকার সমাজে ন্যায্য অধিকার, ন্যায় বিচার এবং সাম্য প্রতিষ্ঠার পর সামাজিক চর্চার মাধ্যমে ফেসমিনিজম আসার কারণে তারা এটিকে সঠিকভাবে বুঝতে এবং প্রয়োগ করতে পেরেছে।

A K M Wahiduzzaman | উৎস | তারিখ ও সময়: 2020-03-08 10:24:01