ধর্ম হোক, বিজ্ঞান হোক, সমাজনীতি হোক (রাজনীতির হিসাব আলাদা, কারণ সেখানে একজন ওয়াই – এএসএম ফখরুল ইসলাম

ধর্ম হোক, বিজ্ঞান হোক, সমাজনীতি হোক (রাজনীতির হিসাব আলাদা, কারণ সেখানে একজন ওয়াইট সুপ্রিমেসিস্ট ও নোয়াম চমস্কি উভয়ের ভোটের/মতামতের ওজন সমান)- আপনি যদি পরিবর্তন চান, তাহলে ভেড়ার পালকে নিয়ে কাজ না করে চিন্তাশীল মানুষদের নিয়ে কাজ করতে হবে। কারণ চিন্তাশীল, শিক্ষিত, যোগ্য মানুষরাই সিদ্ধান্ত নেয়। ভেড়ারা কোনো সিদ্ধান্ত নেয় না। তারা সিদ্ধান্ত পালন করে।

ভেড়ার পালের নিজস্ব কোনো থট নাই। আপনাকে চ্যালেঞ্জ করার সামর্থ্য তাঁর নাই। এজন্যই সে ভেড়া। এদেরকে চেতনা বোঝালে চেতনা বুঝবে। করোনাভাইরাসের ইন্টারভিউ শোনালে “আল্লাহু আকবার” গগনবিদারী চিৎকার দিয়ে ফেটে পড়বে। দিনশেষে, এদের গগনবিদারী চিৎকার কাউন্টস ফর নাথিং। বিকজ দে *আর* নাথিং।

সমাজে এরকম এক কোটি ভেড়ার কোনো ইম্প্যাক্ট নাই (গায়ের জোরের ইম্প্যাক্টের হিসাব করলে অবশ্য তাঁরা প্রচন্ড ইম্প্যাক্টফুল)। কারণ ইম্প্যাক্ট ফেলার জন্য যে জ্ঞান, শিক্ষা, যোগ্যতা, ট্রেনিং লাগে এদের তা নাই। এরা এসেছে আপনাকে ভাইরাল করতে। আপনিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে খুব বগল চাপড়াচ্ছেন। কিন্তু পৃথিবীর কোনো প্রবলেম সলভ করতে দিলে আপনাকে খুঁজে পাওয়া যাবে না। কারণ আপনার কোনো স্কিল নাই, এক্সপার্টিজ নাই। আপনার ফলোয়ারদের জ্ঞান, গরীমা, স্কিল, এক্সপার্টিজও হিউমিলিয়েটিং পর্যায়ের। সুতরাং আপনারা একে অন্যের কাছে হিরো। কারণ আপনারা একে অপরকে কমপ্লিমেন্ট করছেন। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ার বাইরে বেরুলে দেখবেন, বাস্তব পৃথিবীতে আপনি এবং আপনার এডমায়ারার বোথ আর নোবডি। ননএনটিটি।

শুনতে এলিটিস্ট মনে হতে পারে, কিন্তু এটাই বাস্তবতা। পৃথিবী এভাবেই চলে এসেছে। সামনেও এভাবেই চলবে। কারণ পৃথিবী ভেড়ার পাল দিয়ে চলে না। সুতরাং পরিবর্তন চাইলে ভেড়ার পালকে টার্গেট না করে রাখালদের টার্গেট করুন। তাঁদের নিয়ে কাজ করুন। আপনি কঠিন বাংলা, ইংরেজি, আরবি মিশিয়ে কথা বললে ভেড়ার পাল হয়তো সেটি ফলো করতে পারবে না, বাংলিশ বলে গালি দিবে, বাট হু কেয়ারস! তাঁরা তো আপনার টার্গেট অডিয়েন্সই নয়! আপনি কানেক্ট করতে চাইছেন তাঁদের সাথে যাদের পড়াশোনা আছে, যারা আপনার ভারী ভারী কথা ফলো করতে পারবে। হ্যাঁ, দুই দিন পর পর হয়তো ভাইরাল হবেন না, কিন্তু ভেড়ার পালের জগতে ভাইরাল হওয়া না হওয়া আদৌ কি কিছু মিন করে? জনপ্রিয়তাই যদি নিরিখ হবে তাহলে শাকিব খানকেই তো এক জীবনে ধরতে পারবেন না।

Asm Fakhrul Islam | উৎস | তারিখ ও সময়: 2020-03-30 21:22:27