শুনতে খারাপ লাগুক আর ভালো, – ইমতিয়াজ মির্জা

শুনতে খারাপ লাগুক আর ভালো,
এখন আওয়ামী লীগই দেশ চালাইতেসে, অদূর ভবিষৎতে আওয়ামী লীগকে সরানোর কোন সম্ভবনা নাই। সেই পরিমান আন্দোলন, সেই পরিমান কূটনীতি, সেই পরিমান ইন্টেলেন্সিয়া, সেই পরিমান সাপোর্ট ফ্রম ল এনফোর্সমেন্ট বাহিণীও কারো নাই।

সুতরাং এই দুর্যোগ আওয়ামী লীগকে নিয়ে মোকাবেলা করতে হবে।
সরকার বিরোধী যারা তাদের সমালোচনা জারি রাখা জরুরী কিন্তু ইন্টেসিটিটা কমাতে হবে। আর কন্সট্রাক্টিভ সমালোচনা করতে হবে।

আওয়ামী লীগ ইনকম্পিটেন্ট, তারা করোনা ভাইরাসকেও নিজেদের সুবিধার জন্য কাজে লাগাবে – লাগাক। এটা তাদের চয়েস। যদি সরকার বিরোধীরাও সেই পর্যায়ে নেমে যায় তো আওয়ামী লীগের সাথে তো কোন পার্থক্য থাকে না।

অনলাইন একটিভিস্টদের এই সময় একটু ফোকাসড হওয়া উচিত।
এই সময় মানুষ উদ্বিগ্ন, গুজব র‍্যাম্পেন্ট।

বিভিন্ন পজেটিভ নিউজ শেয়ার করা দরকার মানুষকে আশা দেয়ার জন্য।
বিশেষ কোন খবর ভেরিফাই করা ছাড়া ছড়ানো উচিত না।
গরুর মুত খেলে করোনা সারে, মুসলমানদের করোনা হবে না এইরকম
ছাগলদের এখন সিরিয়াস দৌড়ানি দেয়ার সময়।
সরকারের চাছাছোলা সমালোচনার চেয়ে এখন কনস্ট্রাক্টিভ সমালোচনা করা দরকার।
সরকারের সদিচ্ছা নাই, তাদের গাফলতি আছে, সেসব মেনেই নিয়ে অন্তত নেক্সট দুইমাস এদের রেয়াত দেয়া দরকার।
কারন স্বৈরাচারী হৌক আর গণতান্ত্রিক হৌক, পৃথিবীর কোন সরকার এই সমস্যা মানুষের সহায়তা ছাড়া সামাল দিতে পারবে না।

ঐখানে করোনাতে রোগী মারা গেছে, শ্বাসকষ্টে রোগী মারা গেছে,
১০০ বার ভেরিফাই করার আগে নিউজ শেয়ার দেয়া উচিত না।
আর যদি পার্সোনালি যাকে নিজের মতো বিশ্বাস করেন তার থেকেই এইধরনের খবর শেয়ার করার উচিত।

এখন গুজব শেয়ার দিয়ে ক্যাওস তৈরি করলে আওয়ামী লীগের ক্ষতি হওয়ার চেয়ে সাধারন মানুষের ক্ষতি হবে বেশী।

এখন জীবন আর মৃত্যুর ব্যাপার, রাজনীতি পরে অনেক করতে পারবেন। এটা আমার উপলব্ধি এখন। বাকীটা আপনার বিবেচনার উপরে।
সব কিছু নিয়ে রাজনীতি করলে তো আপনি আর মানুষ থাকেন না আপনি আওয়ামী লীগ হয়ে যান।
#করোনাডাইরীজ

Imtiaz Mirza | উৎস | তারিখ ও সময়: 2020-03-26 21:24:19